প্রকাশনা শিল্পে এই অ্যাক্সেসিবিলিটি নির্দেশিকাগুলি অনুসরণ করে কীভাবে একটি অন্তর্ভুক্ত পড়ার অভিজ্ঞতা তৈরি করবেন তা শিখুন। আপনার বিষয়বস্তু সবার কাছে অ্যাক্সেসযোগ্য করে পাঠক এবং ব্যস্ততা বাড়ান।

প্রকাশকদের জন্য মূল অ্যাক্সেসিবিলিটি নির্দেশিকাগুলি কী কী?

একটি অন্তর্ভুক্ত পড়ার অভিজ্ঞতা তৈরি করতে, প্রকাশকদের অবশ্যই প্রকাশকদের জন্য কিছু সর্বোত্তম অনুশীলন নির্দেশিকা অনুসরণ করতে হবে। এই নির্দেশিকাগুলির মধ্যে রয়েছে:

ছবির জন্য বিকল্প পাঠ্য প্রদান:

বিকল্প টেক্সট বা অল্ট টেক্সট দৃষ্টি প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের ছবির বিষয়বস্তু বুঝতে সাহায্য করে। তাই, প্রকাশকদের অবশ্যই নিশ্চিত করতে হবে যে সমস্ত ছবিতে উপযুক্ত অল্ট টেক্সট আছে।

সঠিক শিরোনাম গঠন ব্যবহার করা:

শিরোনামগুলি বিষয়বস্তুর কাঠামো প্রদান করে এবং জ্ঞানীয় অক্ষমতাযুক্ত ব্যক্তিদের বিষয়বস্তুকে আরও ভালভাবে বুঝতে সাহায্য করে। অতএব, প্রকাশকদের অবশ্যই সঠিক শিরোনাম কাঠামো ব্যবহার করতে হবে, যার মধ্যে H1, H2, এবং H3 ট্যাগগুলি রয়েছে, একটি স্পষ্ট শ্রেণিবিন্যাস প্রদান করতে।

বিষয়বস্তু কীবোর্ড অ্যাক্সেসযোগ্য করা:

গতিশীলতা অক্ষম ব্যক্তিরা ডিজিটাল সামগ্রী নেভিগেট করতে কীবোর্ড ব্যবহার করে। সুতরাং, প্রকাশকদের অবশ্যই নিশ্চিত করতে হবে যে তাদের বিষয়বস্তু কীবোর্ড অ্যাক্সেসযোগ্য, যার অর্থ ব্যবহারকারীরা সমস্ত সামগ্রী অ্যাক্সেস করতে পারে এবং কর্মপ্রবাহকে সহজ করে তুলতে পারে।

ভিডিওর জন্য বন্ধ ক্যাপশন এবং প্রতিলিপি প্রদান করা:

ক্লোজড ক্যাপশন এবং ট্রান্সক্রিপ্ট উভয়ই শ্রবণ প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের ভিডিও বিষয়বস্তু বুঝতে সাহায্য করে। সুতরাং, প্রকাশকদের অবশ্যই সমস্ত ভিডিও সামগ্রীর জন্য বন্ধ ক্যাপশন এবং প্রতিলিপি প্রদান করতে হবে৷

রঙের বৈসাদৃশ্যের জন্য ডিজাইন করা:

দৃষ্টি প্রতিবন্ধী বা বর্ণান্ধতায় আক্রান্ত ব্যক্তিদের নির্দিষ্ট রঙের মধ্যে পার্থক্য করতে অসুবিধা হতে পারে। সুতরাং, প্রকাশকদের অবশ্যই নিশ্চিত করতে হবে যে পাঠযোগ্যতা নিশ্চিত করতে পাঠ্য এবং পটভূমির মধ্যে যথেষ্ট বৈসাদৃশ্য রয়েছে।

বর্ণনামূলক লিঙ্ক ব্যবহার করে:

লিঙ্কগুলিতে বর্ণনামূলক পাঠ্য থাকা উচিত যাতে দৃষ্টি প্রতিবন্ধী বা জ্ঞানীয় অক্ষমতা সহ ব্যক্তিদের লিঙ্কের বিষয়বস্তু বুঝতে সহায়তা করে। প্রকাশকদের উচিত “এখানে ক্লিক করুন” বা “আরো পড়ুন” এর মতো বাক্যাংশ ব্যবহার করা এড়িয়ে চলা এবং পরিবর্তে “আমাদের অ্যাক্সেসযোগ্য প্রকাশনা সম্পর্কে আরও জানুন” এর মতো বর্ণনামূলক পাঠ্য ব্যবহার করা উচিত।

সঠিক টেবিল গঠন নিশ্চিত করা:

চাক্ষুষ বা জ্ঞানীয় প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের জন্য টেবিলগুলি চ্যালেঞ্জিং হতে পারে। ডেটা বোঝা সহজ করতে প্রকাশকদের অবশ্যই নিশ্চিত করতে হবে যে শিরোনাম সারি এবং কলাম সহ টেবিলগুলির একটি সঠিক কাঠামো রয়েছে।

ভিডিওর জন্য অডিও বর্ণনা প্রদান করা:

অডিও বর্ণনা ভিজ্যুয়াল প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের ভিডিওর ভিজ্যুয়াল বিষয়বস্তু বুঝতে সাহায্য করে। প্রকাশকদের সমস্ত ভিডিও সামগ্রীর জন্য অডিও বিবরণ প্রদান করা উচিত।

ফর্মগুলিকে অ্যাক্সেসযোগ্য করা:

গতিশীলতা বা জ্ঞানীয় প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের জন্য ফর্মগুলি চ্যালেঞ্জিং হতে পারে। প্রকাশকদের নিশ্চিত করা উচিত যে তাদের ফর্মগুলি কীবোর্ড অ্যাক্সেসযোগ্য এবং উপযুক্ত লেবেল এবং নির্দেশাবলী রয়েছে৷

বিকল্প বিন্যাস প্রদান:

কিছু প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের নির্দিষ্ট বিন্যাসে বিষয়বস্তু অ্যাক্সেস করতে অসুবিধা হতে পারে। বিষয়বস্তু নির্মাতাদের বিকল্প বিন্যাস প্রদান করা উচিত, যেমন প্লেইন টেক্সট, এইচটিএমএল, সিএসএস বা এক্সএমএল, যাতে সমস্ত ব্যক্তি সামগ্রী অ্যাক্সেস করতে পারে তা নিশ্চিত করতে।

অ্যাক্সেসযোগ্যতা নিশ্চিত করার জন্য সরঞ্জাম এবং সংস্থানগুলি কী কী?

নির্দেশিকাগুলি অন্তর্ভুক্তিমূলক প্রকাশনার অ-প্রযুক্তিগত এবং প্রযুক্তিগত দিকগুলি কভার করে প্রকাশকদের জন্য একটি প্রস্তুত রেফারেন্স প্রদান করে৷ এখানে কিছু সরঞ্জাম এবং সংস্থান রয়েছে যা প্রকাশকরা অ্যাক্সেসযোগ্যতা নিশ্চিত করতে ব্যবহার করতে পারেন:

ওয়েব কন্টেন্ট অ্যাক্সেসিবিলিটি নির্দেশিকা (WCAG):

WCAG 2.0 হল ওয়ার্ল্ড ওয়াইড ওয়েব কনসোর্টিয়াম (W3C) দ্বারা প্রকাশকদের তাদের বিষয়বস্তু অ্যাক্সেসযোগ্য করতে সাহায্য করার জন্য তৈরি করা নির্দেশিকাগুলির একটি সেট৷ নির্দেশিকাগুলি প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের জন্য ওয়েব সামগ্রীকে আরও অ্যাক্সেসযোগ্য করার জন্য নির্দিষ্ট সুপারিশ প্রদান করে।

অ্যাক্সেসিবিলিটি পরীক্ষক :

অনলাইনে উপলব্ধ বেশ কয়েকটি অ্যাক্সেসিবিলিটি চেকার রয়েছে যা প্রকাশকদের তাদের সামগ্রীর অ্যাক্সেসযোগ্যতা মূল্যায়ন করতে সহায়তা করতে পারে। কিছু জনপ্রিয় বিকল্পের মধ্যে রয়েছে WAVE, Axe, এবং Lighthouse. এই সরঞ্জামগুলি একটি ওয়েবসাইট বা নথি স্ক্যান করতে পারে এবং অ্যাক্সেসযোগ্যতার সমস্যাগুলির উপর বিশদ প্রতিবেদন সরবরাহ করতে পারে।

স্ক্রিন রিডার:

স্ক্রিন রিডার হল সহায়ক প্রযুক্তি যা দৃষ্টি প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের উচ্চস্বরে পাঠ্য পড়তে পারে। জনপ্রিয় স্ক্রিন রিডারগুলির মধ্যে রয়েছে JAWS, NVDA এবং ভয়েসওভার। প্রকাশকরা তাদের সামগ্রীর অ্যাক্সেসযোগ্যতা পরীক্ষা করতে এবং এটি স্ক্রিন রিডারদের দ্বারা পড়তে পারে তা নিশ্চিত করতে এই সরঞ্জামগুলি ব্যবহার করতে পারেন।

কালার কনট্রাস্ট চেকার:

কন্টেন্ট উপলব্ধি করার জন্য দৃষ্টি প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের জন্য রঙের বৈসাদৃশ্য অপরিহার্য। বেশ কিছু অনলাইন টুল উপলব্ধ রয়েছে যা প্রকাশকদের তাদের বিষয়বস্তুর রঙের বৈসাদৃশ্য মূল্যায়ন করতে সাহায্য করতে পারে। কিছু জনপ্রিয় বিকল্পের মধ্যে রয়েছে কনট্রাস্ট চেকার এবং কালার সেফ।

নির্দিষ্ট প্ল্যাটফর্মের জন্য অ্যাক্সেসযোগ্যতার নির্দেশিকা:

কিছু প্ল্যাটফর্ম, যেমন WordPress এবং Shopify, প্রকাশকদের জন্য নির্দিষ্ট অ্যাক্সেসিবিলিটি নির্দেশিকা প্রদান করে। কিছু EPUB 3 এবং ব্রেইল প্রকাশক বইয়ের পাঠ্য বিষয়বস্তুর সারণী হিসাবে পরিবেশন করার জন্য কেবল নেভিগেশন ফাইলের সাথে লিঙ্ক করে। এই নির্দেশিকাগুলি প্রকাশকদের তাদের বিষয়বস্তু প্ল্যাটফর্মের অ্যাক্সেসযোগ্যতার প্রয়োজনীয়তা পূরণ করে তা নিশ্চিত করতে সাহায্য করতে পারে।

অ্যাক্সেসিবিলিটি ট্রেনিং:

অনেক সংস্থা প্রকাশকদের জন্য অ্যাক্সেসিবিলিটি বৈশিষ্ট্যের উপর প্রশিক্ষণ অফার করে। প্রশিক্ষণ প্রকাশকদের কীভাবে অ্যাক্সেসযোগ্য বিষয়বস্তু ডিজাইন এবং বিকাশ করতে হয় তা শিখতে সাহায্য করতে পারে এবং অ্যাক্সেসিবিলিটি নিয়মগুলি পূরণ করার বিষয়ে নির্দেশিকা প্রদান করতে পারে।

প্রকাশনায় অ্যাক্সেসযোগ্যতার জন্য টেক্সট-টু-স্পিচ

টেক্সট-টু-স্পিচ হল দৃষ্টি প্রতিবন্ধী বা পড়ার অক্ষমতাযুক্ত ব্যক্তিদের জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ অ্যাক্সেসিবিলিটি বৈশিষ্ট্য। এটি তাদের সিন্থেটিক স্পিচ টেকনোলজি ব্যবহার করে একটি পাঠ্যের বিষয়বস্তু উচ্চস্বরে পড়ার অনুমতি দেয়। প্রকাশকরা তাদের বিষয়বস্তুতে টেক্সট-টু-স্পিচ কার্যকারিতা যোগ করতে পারেন যাতে প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের তাদের সামগ্রীর অ্যাক্সেসযোগ্য বিন্যাস রয়েছে তা নিশ্চিত করতে।

কেন পাঠ্য থেকে বক্তৃতা প্রকাশকদের জন্য অ্যাক্সেসযোগ্যতার ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ:

শ্রোতা বাড়ায়:

টেক্সট-টু-স্পিচ কার্যকারিতা যোগ করার মাধ্যমে প্রকাশকের বিষয়বস্তুর জন্য দর্শক বৃদ্ধি করতে পারে যা দৃষ্টি প্রতিবন্ধী বা পড়ার অক্ষমতা আছে এমন ব্যক্তিদের জন্য অ্যাক্সেসযোগ্য করে তোলে।

অ্যাক্সেসযোগ্যতার নির্দেশিকা মেনে চলে:

অনেক অ্যাক্সেসিবিলিটি নির্দেশিকা ডিজিটাল কন্টেন্টের জন্য টেক্সট-টু-স্পিচ কার্যকারিতার বিধানের প্রয়োজন, এটি প্রকাশকদের জন্য একটি অপরিহার্য বৈশিষ্ট্য তৈরি করে যারা অ্যাক্সেসিবিলিটি প্রবিধানের সাথে সম্মতি নিশ্চিত করতে চায়।

ব্যবহারযোগ্যতা উন্নত করে:

টেক্সট-টু-স্পিচ কার্যকারিতা সমস্ত ব্যবহারকারীদের জন্য এটি পড়ার পরিবর্তে বিষয়বস্তু শোনার অনুমতি দিয়ে ডিজিটাল সামগ্রীর ব্যবহারযোগ্যতা উন্নত করতে পারে। এটি বিশেষত সেই ব্যক্তিদের জন্য উপকারী হতে পারে যারা শ্রবণ শিক্ষা পছন্দ করেন।

ভিজ্যুয়াল কন্টেন্টের বিকল্প প্রদান করে:

যে বিষয়বস্তুতে ভিজ্যুয়াল বিষয়বস্তু রয়েছে, যেমন ছবি বা চার্ট, টেক্সট-টু-স্পীচ কার্যকারিতা দৃষ্টি প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের তথ্য বোঝার জন্য একটি বিকল্প উপায় প্রদান করতে পারে।

সচরাচর জিজ্ঞাস্য

অ্যাক্সেসিবিলিটি কি?

অ্যাক্সেসযোগ্য তথ্য ডিজিটাল সামগ্রী, পণ্য এবং পরিষেবাগুলির নকশাকে বোঝায় যা প্রতিবন্ধী সহ সমস্ত ব্যক্তি ব্যবহার করতে পারে৷ এটির লক্ষ্য প্রতিবন্ধকতা, যেমন ভিজ্যুয়াল, অডিয়াল, ডিসলেক্সিয়া, বা জ্ঞানীয় প্রতিবন্ধকতার জন্য প্রতিবন্ধকতাগুলিকে দূর করা এবং তথ্য ও প্রযুক্তিতে সমান অ্যাক্সেস প্রদান করা।

কেন প্রকাশকদের জন্য অ্যাক্সেসযোগ্যতা বিষয়?

অ্যাক্সেসিবিলিটি শুধুমাত্র একটি আইনি প্রয়োজনীয়তা নয় বরং প্রত্যেকের ডিজিটাল প্রকাশনা অ্যাক্সেস করতে পারে তা নিশ্চিত করার জন্য একটি নৈতিক বাধ্যবাধকতা। প্রকাশকদের জন্য অ্যাক্সেসযোগ্যতার মানগুলিরও উল্লেখযোগ্য সুবিধা রয়েছে। তাদের বিষয়বস্তু অ্যাক্সেসযোগ্য করে, প্রকাশকরা প্রতিবন্ধী ব্যক্তি সহ তাদের পাঠক এবং ব্যস্ততা বাড়াতে পারে। প্রকাশকরা তাদের এসইও র‌্যাঙ্কিং উন্নত করতে পারেন এবং অ্যাক্সেসিবিলিটি নির্দেশিকা অনুসরণ করে আইনি সমস্যা এড়াতে পারেন।